Seo কি? ব্লগে কিভাবে Seo এর ব্যবহার করবেন

আমরা সবাই ই কম বেশি পরিচিত Seo এর সাথে, আর যারা ব্লগিং করেন তাদের আর্টিকেলে এ অনপেজ এসইও কতটা গুরুত্ব পূর্ন তা হয়তো সবাই ই জানেন, তবে সঠিক ভাবে এসইও না করতে পারার কারনে আপনার আর্টিকেলটি গুগলের এবং অন্য সকল সার্চ ইন্জিনের প্রথমে আসবে না। যার ফলে আপনি প্রচুর পরিমানে ভিজিটর হারাবেন, তাই অবশ্য ই আপনাকে সঠিক ভাবে অনপেজ এসইও করতে হবে।Seo কি

Seo কি

আজকে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো কিভাবে সঠিক ভাবে আপনার ব্লগে অনপেজ এসইও করবেন। ব্লগের আর্টিকেলে এসইও করাটা প্রধানত আর্টিকেলের keyword এর উপরে নির্ভর করে। তাই আর্টিকেলে অনপেজ এসইও করার আগে কিছু বিষয় আপনাকে অবশ্য ই জানতে হবে।

What is Seo বা Seo কি?

Seo এমন একটি প্রক্রিয়া যার দ্বারা আমাদের ব্লগের আর্টিকেলটি গুগলের প্রথম যে ১০ টি পেজ থাকে সেখানে আনতে পারি। তাহলে মানুষ যখন গুগলে সার্চ করবে তখন আমাদের ব্লগের আর্টিকেল টি সবার প্রথমে আসবে যার ফলে আমাদের সাইটে তুলনা মূলক প্রচুর পরিমানে ভিজিটর বাড়বে।  যদি আপনি সঠিক ভাবে Seo করতে পারেন, তাহলে google ই আপনার পোস্ট গুলো এবং আপনার ব্লগ তার প্রথম পেজে এনে দিবে। আপনি যদি সঠিক ভাবে Seo করেন তাহলে শুধুমাত্র Google ই নয় বরং অন্য সার্চ ইন্জিন গুলোতে ও আপনার আর্টিকেল টি সবার আগে থাকবে। Seo কি

Seo হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যেটি ব্যবহারের মাধ্যমে আমাদের ব্লগ বা ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুলি Google,Bing, Baidu বিভিন্ন সার্চ ইন্জিনে তাদের প্রথম পেজে বা সবার আগে আমাদের আর্টিকেল টি দেখাবে। এর ফলে যখন কোন ব্যক্তি কোন সার্চ ইন্জিনে কোন কিছু সার্চ করবে তখন সেগুলি যদি আমাদের আর্টিকেল রিলেটেড হয় তাহলে এটি তাকে দেখাবে,ফলে আমরা অনেক ফ্রি ভিজিটর পাবো।

ব্লগে বা ওয়েবসাইটে আয় করার জন্য এটি ই হলো সবচেয়ে গুরুত্ব পূর্ন মাধ্যম। আপনার সাইটে যত ভিজিটর বাড়বে তত ই আপনার আয় ও বাড়বে। Seo কি

 যেমনঃ Yahoo, Bing  সহ অনন্য।

Seo কি

What is Keyword বা keyword কি?

Keyword হলো একটি টপিক, আপনার ব্লগে যে আর্টিকেল গুলি লিখবেন সেগুলি ই keyword। আর্টিকেলের সাথে জড়িত সকল শব্দ গুলো কে ও keyword বলা হয়। আপনার সঠিক ভাবে আর্টিকেলে keyword ব্যবহারের মাধ্যমে আপনার সাইট টি র‌্যাংকিং করতে পারে। তাই সুন্দর করে keyword গুলি আর্টিকেলে লিখতে হবে। যদি আপনি সঠিক ভাবে keyword ব্যবহারের দ্বারা আর্টিকেল টি লিখতে পারেন তাহলে যখন কোন ব্যক্তি আপনার keyword এর সাথে জড়িত এমন কোন কিছু গুগলে বা অন্য যে কোন সার্চ ইন্জিন গুলিতে সার্চ করবে তখন আপনার আর্টিকেল টি তার সামনে আসবে। Seo কি

আপনার আর্টিকেল টি যদি গুগলের প্রথমে আসে তাহলে গুগলে যে ট্রাফিক আসে তারা আপনার সাইটে আসবে এবং আপনি প্রচুর ভিজিটর পাবেন। তাই সঠিক keyword ব্যবহার করতে হবে।

What is Keyword density বা keyword density কি?

Keyword density হলোঃ শব্দের ঘনত্ব। আমি একটু আগে keyword কি সেটা কেন ব্যবহার করবেন এটি বুঝানোর চেষ্টা করেছি, এরপর যেটি রয়েছে সেটি হলো Keyword density, আপনি যখন আর্টিকেলটি লিখবেন তখন সেই আর্টিকেলের মধ্যে একটি keyword কত বার ব্যবহার করতে পারবেন সেটি ই হলো Keyword density বা শব্দের ঘনত্ব।

ধরুন: আপনি একটি আর্টিকেল লিখতেছেন তার টপিক বা বিষয় হলো: কিভাবে অনলাইনে আয় করা যায়, এখন এই আর্টিকেল টির মধ্যে আপনি যে কোন শব্দ সর্বোচ্চ কত বার বা সর্ব নিম্ন কত বার ব্যবহার করবেন এটি কে বলে keyword density.

আপনি যদি সঠিক ভাবে keyword density ফলো করে আর্টিকেল টি লিখেন তাহলে আর ও সহজে গুগলের প্রথমে আসতে পারবেন।

তাছাড়া সবচেয়ে বড় যে বিষয়  টি আপনি যদি সঠিক ভাবে এই keyword  density  না মেনে কাজ করতে থাকেন তাহলে গুগল যে কোন সময় আপনার আর্টিকেল টিকে Panalize করে দিতে পারে, যদি একবার Panalize করে তাহলে আপনার সেই আর্টিকেল টিকে আর গুগলে দেখাবে না।

তাই আর্টিকেল লেখার সময় সঠিক ভাবে keyword ব্যবহার করা সহ keyword ডেনসিটি যেন বেশি না হয়ে যায় সেদিকে অবশ্য ই খেয়াল রাখতে হবে। keyword ডিনসিটি ১% হতে সর্বচ্চ ১.৫% এর ভিতরে রাখার চেষ্টা করবেন।

Seo কত প্রকার?

Seo মোট দুপ্রকার, অনপেজ এসইও এবং অফপেজ এসইও, On page seo হলো: এমন এসইও যা আমরা আমাদের ব্লগের মধ্যে আর্টিকেল লেখার সময় করে থাকি। Seo কি

On page seo কিভাবে আপনার সাইটে বা ব্লগে Seo করবেন?

আমি আগে যে দুটি বিষয় বলেছি, যদি আপনি এ দুটি বিষয় সঠিক ভাবে করেন তাহলে ই আপনার অনপেজ এসইও এর কাজ প্রায় ৮০% শেষ হয়ে যাবে। Seo কি

ব্লগে আর্টিকেলের মধ্যে সঠিক ভাবে keyword গুলো দেওয়া ই হলো প্রধান কাজ Seo এর জন্য, যদি আমাদের ৮০% কাজ হয়ে যায় তাহলে আর ২০% কাজ কিভাবে করতে হবে সেটি দেখে আসি।

১) আর্টিকেলের মধ্যে টাইটেল ট্যাগ ব্যবহার করা

আর্টিকেল টি লেখার সময় অবশ্য ই একটি টাইটেল ব্যবহার করবেন যাতে টাইটেল টি পড়ে , ভিজিটর রা বুঝতে পারে যে আপনিএই আর্টিকেল টি কোন বিষয়ে লিখছেন। এবং টাইটেল এর মধ্যে আপনার যে Focous keyword সেটি একবার রাখবেন। Seo কি

 টাইটেল টি সহজ ভাষায় লিখবেন, আপনার আর্টিকেলের মধ্যে যা রয়েছে তার সারমর্ম হলো এই টাইটেল।

২) আর্টিকেল এর ভিতরে URL Address এ Keyword ব্যবহার করা

 আপনার সাইট টি ওয়ার্ডপ্রেস বা ব্লগার যা ই হোক না কেন আপনি URL option এর মধ্যে URLএডিট করার অপশন পাবেন সেখানে আপনার টার্গেট করা keyword যথা সম্ভাব ছোট করে দিবেন।

কখন ও টাইটেল টি পুরো-পুরি দিবেন কারন এটি গুগল বুঝানোর জন্য তাই আপনার টার্গেট করা keyword টি এখানে দিবেন।

৩) টার্গেট করা keyword এর সঠিক ব্যবহার

আমি উপরে বলেছি keyword কতটা গুরুত্ব পূর্ন, তাই keyword এর সঠিক ব্যবহার অবশ্য ই করতে হবে। যদি আপনি আপনার টার্গেট করা keyword keyword এক-একধিক বার ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনার আর্টিকেলে keyword density হতে পারে, তাই সঠিক ভাবে বসানোর একটি নিয়ম রয়েছে, তা হলো: প্রথমে আপনার যে আর্টিকেল এটির প্রথম ভাগে একবার বসাবেন তারপর এর মাযে দু বার এবং শেষে এর প্যারায় একবার বসাবেন। Seo কি

তবে যদি আপনার আর্টিকেল টি বেশ বড়ো হয়ে থাকে তাহলে সে অনুপাতে একটু বাড়িয়ে বসাতে পারেন। যার ফলে গুগল সহ অনন্য সার্চ ইন্জিন গুলো সহজে ই বুঝতে পারবে আপনার আর্টিকেল টি কোন বিষয়ের প্রতি লিখেছেন। তাহলে আপনার আর্টিকেল টি র‌্যাংক করে সবার উপরে আপনার টি ই থাকবে।

৪) আর্টিকেল টি লেখার সময় সাধারনত ১৪০০-১৫০০ অক্ষরের উপরে লিখার চেষ্টা করুন। কারন গুগলে মনে করে যদি আপনার পোস্ট এ সাধারন এর তুলনায় বেশি লেখা থাকে তাহলে আপনার আর্টিকেল টিকে গুরুত্ব দেয়, সে ভাবে আপনার পোস্টে সকল কিছু বিস্তারিত আছে তাই এটাকে গুগল তার প্রথম পেজে নিয়ে আসে। এটি এসইও এর জন্য খুব ই গুরুত্ব পূর্ন ভূমিকা পালন করে তাই আর্টিকেল টি লম্বা করে লেখার চেষ্টা করুন।

৫) Internal link এর ব্যবহার করা, ব্লগে আর্টিকেল লেখার সময় ইন্টারনাল লিংক ব্যবহার করতে হবে।

Internal link হলো আপনি যে ব্লগ টি লিখতেছেন এর সাথে মিল রেখে বা  এটি রিলেটেড অন্য যে পোস্ট আছে সেগুলো এ লিংক টি এখানে পেস্ট করা। এসইও এর ক্ষেত্রে ইন্টার্নাল লিংক ব্যবহার করা খুব ই জরুরী।

৬) Alt Tag এর ব্যবহার করাঃ এটি হলো: যখন আপনি কোন আর্টিকেল লিখবেন তখন সেই আর্টিকেলের মধ্যে ছবি ব্যবহার করবেন এবং ছবি ব্যবহার করার সময় এই alt tag ব্যবহার করতে হবে। এখানে আপনি আল্টা ট্যাগের জায়গায় আপনার ফোকাস কিওয়ার্ড টি ব্যবহার করতে পারেন।

যদি আপনি এভাবে আল্টা ট্যাগ ব্যবহার করেন তাহলে সকল সার্চ ইন্জিন গুলো বুঝতে পারে আপনার এই ছবিটি কি রিলেটেড, তাই সব সময় অবশ্য ই Alt tag ব্যবহার করবেন।

এই পদ্ধতি গুলো গুগল ই শেয়ার করেছে তাই যদি আপনার আর্টিকেল টি গুগলে সবার প্রথমে আনতে চান তাহলে অবশ্য ই এসইও এর নিয়ম মেনে পোস্ট করতে হবে।

On page seo এর পরে Off page seo করতে হবে, এবারে আমি অফ পেজ এসইও এর এমন কিছু টেকনিক শেয়ার করবো যা নিশ্চয় ই আপনার কাজে লাগবে।

১) ‍যখন আপনার আর্টিকেল লেখা পাবলিস্ট করবেন তারপরে আপনি গুগল সার্চ কন্সোল এ গিয়ে আপনার পোস্ট টি সাবমিট করুন। কারন: এই সাবমিট করার পর আপনার আর্টিকেল টি তাদের মেমরিতে জমা করবে এবং মানুষ সার্চ করলে আপনার পোস্টটি প্রথমে দেখাবে। তাই অবশ্য ই আর্টিকেল টি পাবলিস্ট করার পর সকল সার্চ ইন্জিনে জমা করবেন।

Seo কি

২) Directory Submission এর ব্যবহার করবেনঃ  আমদের ব্লগ বা আর্টিকেল টি বিভিন্ন Directory Submission এ জমা করতে পারি, তবে অবশ্যই খেয়াল করতে হবে যেখানে Directory Submission জমা করবো তাদের DA(Domain Authority) এবং PA(Page Authority) কেমন, যাদের এই DA(Domain Authority) এবং PA(Page Authority) বেশি থাকবে সেখানে আমরা Directory Submission জমা করলে আমাদের সাইটে আমরা Backlink পাবো।

যে সাইটের DA(Domain Authority) এবং PA(Page Authority) যত বেশি, সেই সাইট গুগলের কাছে প্রধান্য বেশি পায়। অর্থাৎ সেই সাইটটি সবার আগে দেখানো হয়।

৩) Blog Comment : আপনি আপনার ব্লগের Link বা Url address অন্য সাইটে বা ব্লগে গিয়ে কমেন্ট করাকে ই বলে Blog Comment. এভাবে আপনি কমেন্ট এর মাধ্যমে আপনার সাইটে Backlink নিয়ে নিতে পারেন, আপনি যত বেশি ব্যকলিংক পাবেন তত আপনার DA এবং PA বাড়বে ফলে আপনার ব্লগটি গুগল এবং অন্য সার্চ ইন্জিন গুলো তে সবার প্রথমে আসবে। Seo কি

তাই যথা সম্ভব ব্যাকলিংক তৈরী করুন।

অবশ্য ই পড়ুন: অনলাইনে আয়ের সব চেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম গুলি

৪) Guest posting এর দ্বারা Backlink তৈরী করুন: Guest posting অফ পেজ এসইও এর জন্য অনেক বড় একটি সুবিধা।  Guest posting এর মাধ্যমে আপনার ব্লগে আপনি Backlink তৈরী করতে পারবেন, যার ফলে আপনার DA এবং PA বাড়বে।

Guest posting কিভাবে বানাবেন: Guest posting হলো, অন্য কোন সাইটে গিয়ে আপনি একটি  পোস্ট লিখার মাধ্যমে তার মধ্যে আপনার সাইটের Link বা Url address দিয়ে দেয়াকে ই বলে Guest posting এর ফলে আপনার সাইটে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর এবং DA এবং PA বাড়াতে পারেন।

তবে একটু খেয়াল করবেন, যাদের সাইটের DA এবং PA কম পক্ষে ৪০-৫০ এর নিচে তাদের সাইটে গিয়ে ব্যাকলিংক বা Guest posting করবেন না, যত বেশি DA এবং PA পাবেন সে সকল সাইটে গিয়ে Guest posting করবেন। Seo কি

সাইটগুলোর  DA(Domain Authority) চেক করতে পারেন এই লিংকে গিয়ে ও Check domain authority

আশা করি,   আপনার ব্লগে কিভাবে seo এর ব্যবহার করবেন সেটি নিশ্চয় ই বুঝেছেন।

এর পরে ও যদি কোন ধরনের প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্য ই কমেন্ট করুন।

যদি এই আর্টিকেল টি আপনার ভালো লাগে তাহলে শেয়ার করতে ভূলবেন না।

আমাদের ফেসবুক পেজে জয়েন করুনঃ Facebook

ধন্যবাদ

Share this

5 thoughts on “Seo কি? ব্লগে কিভাবে Seo এর ব্যবহার করবেন

    • TATKA NEWS
      November 1, 2019 at 5:11 pm
      Permalink

      wc

      Reply
    • TATKA NEWS
      November 1, 2019 at 5:48 pm
      Permalink

      স্বাগতম

      Reply
    • TATKA NEWS
      November 3, 2019 at 6:16 pm
      Permalink

      Thanks

      Reply

Leave a Reply

%d bloggers like this: